কর্মজীবী নারীদের ব্যায়াম অবশ্যই জরুরি

আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ঘরের বাইরে কর্মক্ষেত্রে পুরুষের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে আসছে নারীরা। বিশ্বজুড়ে কর্মক্ষেত্রে নারীদের ব্যাপক অংশগ্রহণ এখন আর কারও অজানা নয়। কিন্তু সারা দিনের কাজ শেষে শরীরটাকেও তো ফিট রাখা চাই। আর সেজন্য নিজের প্রতি আরও একটু বেশি যত্নশীল হতে হবে।

কাজের জন্য আজকাল মেয়েদেরও অহরহ বাইরে যেতে হচ্ছে। বিশেষ করে যানজটযুক্ত শহরে দিনের বেশিরভাগ সময়ই তাদের অফিস আর পথে কেটে যায়। এর ফাঁকেই শরীরচর্চার জন্য সময় বের করে নিতে হবে।

ব্যস্ততার ভেতরও যেভাবে আপনি আপনার শরীরচর্চা অব্যাহত রাখবেন:

শুরুতেই আপনাকে বাড়তি সচেতন হতে হবে। কাজ প্রতিদিনই থাকবে। তাই বলে নিজের শরীরের যত্নে আপস করা চলবে না।

অতএব আপনি আপনার সুবিধামতো কিছু ব্যায়াম করার চেষ্টা করুন। কম করে হলেও সপ্তাহে দুই দিন ২০ মিনিট করে ব্যায়াম করুন। হতে পারে সেটি দৌড় বা হাঁটাহাঁটি।

যথাসাধ্য কথা ও কাজের মধ্যে থাকার চেষ্টা করতে হবে। কথা বলার সময় দাঁড়িয়ে কথা বলা, লেখা বা টাইপিংয়ের কাজ না থাকলে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে কাজ করা যেতে পারে।

অফিসে যদি লাঞ্চ করেন তবে সেখানেই কিছুটা হাঁটা যেতে পারে। তাছাড়া প্রতি আধাঘণ্টা ব্যবধানে ডেস্ক ছেড়ে অন্তত এক মিনিটের জন্য হেঁটে নেয়া স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

শরীরচর্চার পাশাপাশি পুষ্টিকর খাবারেরও কিন্তু বিকল্প নেই। দিনের বেশিরভাগ সময় হালকা খাবার খাওয়ার অভ্যাস থাকলে আজেবাজে জিনিস না খেয়ে স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খাওয়া উচিত। এতে শরীর ক্ষতির হাত থেকে রেহাই পাবে। সুতরাং রোগের হাত থেকে বাঁচতে স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খাওয়াতেই প্রাধান্য দিন।

দিনের শুরু হয় সকাল দিয়ে। অতএব সকালের খাবারটার প্রতি বাড়তি মনোযোগী হোন। কারণ স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য কর্মজীবী নারীদের স্বাস্থ্যসম্মত খাবারটা জরুরি।

সকালের নাশতায় কিছু ফল থাকতে পারে। পাশাপাশি আপনি চাইলে দুটো ডিম কিংবা একটি-দুটি কলাও খেতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *