পরিবর্তন আসবে ব্যাটিং অর্ডারে?

পায়রা ডেস্ক: সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচে শুক্রবার স্বাগতিক বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সিলেটে অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচে নির্ধারিত হবে সিরিজ। প্রথম ম্যাচে বেশ কিছু ভুল করেও রেহায় পায় বাংলাদেশ। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে ভুলের সাজা মিলেছে ম্যাচ হেরে। শেষ ম্যাচে তাই ভুল করার সুযোগ নেই মাশরাফিদের।

শেষ ওয়ানডে ম্যাচেও বাংলাদেশের একাদশ নিয়ে নেই খুব বেশি ভাবনা-চিন্তা। অপরিবর্তিত দল নিয়েই নামার কথা মাশরাফিদের। একাদশে থাকবেন তিন পেসার। সঙ্গে চার ওপেনার তামিম, লিটন, সৌম্য এবং ইমরুলেরও খেলা নিয়ে খুব বেশি সংশয় নেই। তবে দলের প্রয়োজনে ব্যাটিং অর্ডারে দেখা যেতে পারে পরিবর্তন।

ওপেনে লিটন দাস মাত্র এক ম্যাচে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। খারাপ করেননি তিনি। দ্বিতীয় ম্যাচে তো মাঠ ছাড়লেন ইনজুরি নিয়ে। শেষে এসে আর ভালো করতে পারেননি। ওদিকে তিনে নামা ইমরুল কায়েস প্রথম দুই ম্যাচেই ব্যর্থ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দুর্দান্ত ফর্ম টেস্টে দেখাতে পারেননি। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট-ওয়ানডে মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ব্যর্থ তিনি।

ইমরুল দল থেকে বাদ না পড়লেও তাই তাকে পরে ব্যাট করতে দেখা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে টপে ব্যাট করার দাবি রাখেন সৌম্য সরকার। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে, তার আগে প্রস্তুতি ম্যাচ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে সেঞ্চুরি করেন তিনি। পরপর পাওয়া ওই তিন সেঞ্চুরি তিনে ব্যাট করেই পান সৌম্য। আর তাই ইমরুলের ব্যর্থতায় তাকে তিনে উঠিয়ে, সাতে নামানো হতে পারে ইমরুলকে।

ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগেই মাশরাফি জানান, তাদের ব্যাটিং পজিশনের কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলাপ হয়েছে। কারও ব্যর্থ হওয়ার ওপর ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তনের বিষয়টিও নিশ্চয় ছিল সেই আলাপে। ওদিকে দলে পরিবর্তন যদি আসে তবে এ ম্যাচে একাদশে দেখা যেতে পারে মোহাম্মদ মিঠুনকে। এশিয়া কাপের ফর্ম পরের ওয়ানডে ও টেস্টে সিরিজে দেখিয়েছেন তিনি। দলে জায়গার দাবিদার তিনিও। ইমরুল-সৌম্যদের তাই তার জন্যও জায়গা ছেড়ে দিতে হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *