মঙ্গলবার, ১৪ Jul ২০২০, ০৬:৫৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
সবাই‌কে কা‌দি‌য়ে না ফেরার দে‌শে চ‌লে গে‌লেন যমুনা গ্রু‌পের চেয়ারম্যান বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা নুরুল ইসলাম বাবুল দুমকিতে এলএইচসিবি’র বিরুদ্ধে অপপ্রচারের নিন্দা প্রতিবাদ দুমকিতে কৃষি কর্মকর্তার করোনা শনাক্ত সভাপতির বিরুদ্ধে অপ-প্রচারের প্রতিবাদে দুমকিতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে অপ-প্রচারের প্রতিবাদে দুমকিতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে অপ-প্রচারের প্রতিবাদে দুমকিতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন মির্জাগঞ্জে আ’লীগ ও ছাত্রলীগ নেতার উপর ভাইস-চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে হামলা বাউফলে সাংবাদিক মিজানকে হত্যা মামলার আসামি করায় প্রেসক্লাব দুমকির নিন্দা। দুমকিতে ইউএনও’র ত্রাণ তহবিলে আশা’র খাদ্য সামগ্রী হস্তান্তর পটুয়াখালীর মৌকরন ইউনিয়নে সাবেক জেলা ছাত্রলীগ নেতার ইফতার সামগ্রী বিতরণ

এক বৈঠকে তিন হাজার সাধু!

ডেস্ক : রামমন্দির ইস্যু নিয়ে আলোচনা করতে একজোট হয়েছে তিন হাজার সাধু। শনিবার (০৩ নভেম্ববর) ভারতের দিল্লির তালকাটোরা স্টেডিয়ামে দু’দিনের বিশেষ বৈঠকে বসছেন ওই সাধুরা।

জানা গেছে, রাম মন্দির তৈরি নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নিতেই তারা এই বিশেষ বৈঠকে বসছেন। এই বৈঠক বা জমায়েতের নামকরণ করা হয়েছে ‘ধর্মাদেশ’।

সামনেই কুম্ভমেলা। তার আগেই এটাই ভারতের বিভিন্ন প্রান্তের সাধু-সন্তদের সবথেকে বড় জমায়েত। অখিল ভারতীয় সন্ত সমিতির জেনারেল সেক্রেটারি স্বামী জিতেন্দ্র সরস্বতী জানান, সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত সাধুরা অসন্তুষ্ট। তাই তারা কী সিদ্ধান্ত নেবেন বলা যাচ্ছে না। তবে একটা বড়সড় সিদ্ধান্ত যে নেওয়া হবে সেটা ঠিকই।

এই সম্মেলনে হিন্দুদের ১২৫টি সম্প্রদায়ের সাধুরা যোগ দিয়েছেন বলে জানিয়েছে তিনি। ১৯৯০ এর রাম মন্দির নিয়ে আন্দোলনের পর এত বড় জমায়েত এই প্রথমবার।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সঙ্গে যুক্ত সব সাধুরা ইতিমধ্যেই ঘোষণা করে দিয়েছেন যে তারা লোকসভায় রামমন্দির ইস্যুতে বিক্ষোভ দেখাবেন। আরএসএসও ইতিমধ্যেই জানিয়েছে যে সুপ্রিম কোর্ট হিন্দুদের আবেগে আঘাত করেছে। তাই রাম মন্দির ইস্যুতে এই সাধুরা নতুন করে আন্দোলনের পথে যাচ্ছেন বলেই অনুমান করা হচ্ছে।

দিল্লিতে সাধু-সন্তদের এই বৈঠক প্রসঙ্গে আরএসএসের জেনারেল সেক্রেটারি ভাইয়াজি যোশী জানিয়েছেন, তিনটি ভাগে ভাগ করে হবে এই বৈঠক। প্রথম পর্বে অযোধ্যায় রাম মন্দির আন্দোলনের সময় যে করসেবকদের মৃত্যু হয়েছিল, তাদের স্মরণ করা হবে। এরপর ১৯৯৬ এ যেসব গোরক্ষাকারীদের লোকসভার সামনে মৃত্যু হয়েছিল তাদের শ্রদ্ধা জানানো হবে। এরপর দ্বিতীয় পর্বে ক্রিশ্চানদের ধর্মান্তরণের পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা হবে।

রোববার (০৪ নভেম্বর) রাম মন্দির ও সবরিমালা ইস্যুতে বক্তব্য রাখবেন শ্রী শ্রী সহ একাধিক সাধু। হিন্দু ভাবাবেগের কথা মাথায় রেখেই তারা বক্তব্য রাখবেন বলে জানা গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2019 payra24.com
Design & Developed BY payra24.com