শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:১৪ পূর্বাহ্ন

দুর্নীতির আখড়া লেবুখালী ইউনিয়ন ভূমি অফিস ১০ টাকার দাখিলা দেড় হাজার টাকা !

দুমকি(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি॥ পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার লেবুখালী ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী তহশিলদার শিমুল পাইন শান্তার বিরুদ্ধে ঘুষ-দূর্ণীতির অভিযোগ ওঠেছে। গত বৃহস্পতিবার জমির খাজনা পরিশোধ করতে আসা জনৈক নুরুল আমিন ওই অভিযোগ করেছেন।
লেবুখালী ইউনিয়নের মুরাদিয়া গ্রামের মৃত- আ: রাজ্জাক হাওলাদারের ছেলে মোহাম্মদ নুরুল আমিন অভিযোগ করে বলেন, লেবুখালী ইউনিয় ভূমি অফিসের সহকারী তহশিলদার শিমুল পাইন শান্তার টেবিলে জমির খাজনা পরিশোধের ‘দাখিলা’ পেতে চাইলে তিনি ১০ টাকার দাখিলায় ১হাজার ৫শ’ টাকা দাবি করেন। বারতি টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তহশিলদার ক্ষেপে যান। এক পর্যায় রেগে গিয়ে বলেন, সবাই দিতে পারলে আপনি কেন পারবেন না? প্রকাশ্যে ঘুষের এমন দর কষাকষির বিষয়ে এসিলান্ড কিম্বা ইউএনও সাহেবকে জানাবেন বললে তিনি আরও ক্ষিপ্ত হন এবং এসব কথোপোকথন মোবাইল ফোনে রেকর্ড করার সন্দেহে তার মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নিয়ে যা করতে পারেন করেন গিয়ে বলে দম্ভোক্তি করেছেন। নুরুল আমিন আরও অভিযোগ করে জানান, তার মতো অন্যান্য সেবা প্রত্যাশীরাও কম বেশী হয়রানির শিকার হচ্ছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সহকারী তহশিলদার শান্তা বলেন, বাড়তি বা ঘুষ চাওয়ার কোন ঘটনাই ঘটেনি। মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়ার প্রশ্নের উত্তরে বলেন, এটি বলা যাবে না, ইউএনও স্যারকে জানাবেন।
দুমকি উপজেলা নির্বাহী অফিসার শঙ্কর কুমার বিশ্বাস বলেন, মোবাইল রেখে দেয়ার ঘটনাটি শুনেছেন। বাড়তি টাকা আদায়ের সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2019 payra24.com
Design & Developed BY payra24.com